বাংলা-সহ ৫ রাজ্যে নির্বাচনের আগেই ডিজিটাল ভারতের ভবিষ্যতে আরও আধুনিক হচ্ছে ভোটার কার্ড, জানাল নির্বাচন কমিশন |

ডিজিটাল হচ্ছে ভোটার আইডি কার্ড; কীভাবে ডাউনলোড করবেন জানুন বিস্তারিত :-

ডিজিটাল Voter-ID Card চালু

ঠিক আধার কার্ডের (Aadhaar Card) মতো এবার আপনার ভোটার আইডি কার্ড (Voter ID Card ) হতে চলেছে ডিজিটাল ৷ এবার ডিজিটাল হচ্ছে ভোটার আইডি কার্ড। চাইলে তা ডাউনলোড করে নিতে পারবেন ভোটদাতারা।

প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি এই EPIC-এ মাল্টি লেয়ার থাকবে নির্বাচন কমিশনের হলোগ্রাম বস করা।প্রত্যেক EPIC-র থাকবে আলাদা বারকোড।

স্মার্ট ভারতের দিকে আরও এক পদক্ষেপ করল দেশ। নতুন রূপে পরিচয় পত্র আনতে চলেছে ভারতীয় নির্বাচন কমিশন। রঙিন এবং দেখতে আরও অথেন্টিক হতে চলেছে EPIC অর্থাত্‍ ইলেক্টোরাল ফটো আইডেন্টিটি কার্ড। নতুন EPIC-এশুধুমাত্র ভোটারের রঙিন ছবিই নয়, থাকবে আরও বেশ কিছু নতুন ফিচার।

থাকবে নানা স্তরে নিরাপত্তা ফিচারও। সারা দেশ জুড়ে EPIC-এ সঙ্গতি আনতে ভোটার কার্ডের এই ভোল বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কর্নাটকে শুরু হয়ে গিয়েছে প্রাথমিক কাজ।

ভোটার আইডি কার্ডও ডিজিটাল

রাজ্যের প্রধান নির্বাচন আধিকারিক সঞ্জীব কুমার জানিয়েছেন, ‘রাজ্যের যে সব নাগরিক ১৮ বছরে পা দিয়েছেন এবং নতুন ভোটার কার্ডের জন্যে আবেদন করেছেন তাঁরা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে ভোটার কার্ড পেয়ে যাবেন।’ প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি এই EPIC-এ মাল্টি লেয়ার থাকবে। থাকবে নির্বাচন কমিশনের হলোগ্রাম এমবস করা। প্রত্যেক EPIC-র থাকবে আলাদা আলাদা বার কোড।

ডিজিটাল Voter-ID Card চালু

সোমবার ২৫ জানুয়ারি National Voters Day। এদিনই নির্বাচন কমিশন(Election Commission) লঞ্চ করছে e-EPIC প্রকল্প। সূত্রের খবর অসম, কেরল, তামিলনাড়ু ও পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের আগে Digital EPIC সার্ভিস চালু হয়ে যাবে।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, দুটি ধাপে ডিজিটাল EPIC দেওয়া হবে। প্রথম দফাটি চলবে ২৫ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

যারা ভোটার কার্ডের জন্য এই প্রথমবার আবেদন করেছেন তারা মোবাইল নম্বর দিয়ে ডিজিটাল ভোটার কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল মোবাইল নম্বরটি।

জিডিটাল ভোটার কার্ড দেওয়ার দ্বিতীয় পর্বটি শুরু হচ্ছে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে। যাদের e-EPIC নেই তাঁরা এই সময়ে আবেদন করতে পারবেন।

যাঁরা ভোটার আইডি তৈরির সময়ে ইতিমধ্যেই মোবাইল নম্বর দিয়েছেন তারা ডিজিটাল কার্ড পেয়ে যাবেন। 

এই কার্ড দেওয়া থাকবে একটি QR code, ছবি, সিরিয়াল নম্বর, পার্ট নম্বর। এটি মোবাইলে সেভ করা যাবে।

ডিজিটাল ভোটার কার্ড ডাউনলোড করবেন জানুন বিস্তারিত :-

ডিজিটাল ভোটার কার্ডের অ্যাপ এবং ওয়েবসাইট https://voterportal.eci.gov.in/ এবং https://www.nvsp.in/ এর মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা যাবে।

নির্বাচন কমিশনের মতে, ভোটার আইডি কার্ডের ডিজিটালাইজেশনের ফলে ভোটাররা ভোট দেওয়ার আগে পরিচয়পত্রটি ব্যবহার করতে পারবেন এবং ভোট দিতে পারবেন।

এছাড়াও, কার্ড নষ্ট হওয়ার ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করা যেতে পারে।